এসএসসি’র প্রশ্ন ফাঁস: তদন্ত কমিটির রিপোর্টে ৭ জনের নাম

দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর কামরুল ইসলাম জানিয়েছেন কুড়িগ্রামের ভুরুঙ্গামারীতে এসএসসি পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁসের ঘটনায় গ্রেপ্তার ও পলাতকসহ ৭জন জড়িত বলে তদন্তে উঠে এসেছে। বৃহস্পতিবার সকালে তিনি জানান, আগামী সপ্তাহের প্রথম দিকে দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ডে তদন্ত কমিটির সদস্যরা লিখিতভাবে প্রতিবেদন দাখিল করবেন।

তিনি বলেন, প্রশ্নফাঁসের ঘটনায় শিক্ষাবোর্ড কর্তৃক ৩ সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি তাদের কার্যক্রম সম্পন্ন করেছেন। আগামী সপ্তাহের রোববার অথবা সোমবার লিখিতভাবে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করবেন তারা। এখন কমিটি যা পেয়েছে তাতে করে প্রশ্নফাঁসের ঘটনায় মূল হোতা হিসেবে মোট ৭ জন জড়িত। তাদের মধ্যে ৬ জনকে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী গ্রেপ্তার করেছে। বাকী একজন বাংলাদেশ থেকে ভারতে চলে গেছে বলে জানা গেছে।

তিনি জানান, এই ঘটনায় আরও যারা জড়িত তাদেরকে বের করতে গ্রেপ্তারদের রিমান্ডে নিতে হবে। ইতিমধ্যেই সেখানকার পুলিশ সুপার জানিয়েছেন গ্রেপ্তারদের রিমান্ডে নেয়ার জন্য আদালতের কাছে আবেদন জানানো হবে।

প্রফেসর কামরুল ইসলাম জানান, এই ঘটনায় কোনভাবেই ট্যাগ কর্মকর্তা দায়িত্ব এড়িয়ে যেতে পারেন না। তাকে মন্ত্রণালয় থেকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে।

তদন্ত কমিটিতে ছিলেন- কুড়িগ্রামের ভুরুঙ্গামারী নেহাল উদ্দিন পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও কেন্দ্র সচিব লুৎফর রহমান, ইংরেজি বিষয়ের সহকারী শিক্ষক আমিনুর রহমান, ইসলাম শিক্ষা বিষয়ের শিক্ষক জোবাইর রহমান, কৃষি বিজ্ঞানের শিক্ষক হামিদুল ইসলাম, বাংলা শিক্ষক সোহের চৌধুরী, অফিস সহকারী আবু হানিফ ও পিয়ন সুজন মিয়া। এই ঘটনার পর ওই বিদ্যালয়ের বিদ্যালয়ের অফিস সহকারী আবু হানিফ পলাতক রয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *