খাওয়ার মাঝে পানি পান, এই অভ্যাসের পরিণতি কী?

সাধারণত আমরা এক গ্লাস পানি নিয়ে ভাত খেতে বসি। কিন্তু অনেকে বলেন, খাওয়ার মাঝে পানি খেলে ক্ষতি হয়। খাবার খাওয়ার মাঝে পানি খাওয়া— অনেকের কাছেই অস্বাস্থ্যকর একটি অভ্যাস। খাওয়ার মাঝে পানি খেলে নাকি খাবার হজম হতে দেরি হয়। এমন অনেক কথা প্রচলন রয়েছে আমাদের সমাজে।

তাহলে পানি কখন খাওয়া উচিত নিয়ে মতভেদ থাকলেও কয়েকটি বিষয়ে গুরুত্ব দেওয়া যেতে পারে। খাওয়ার সময় মুখে যে লালা বের হয় তাতে অনেক ধরনের এনজাইম থাকে। এগুলো খাদ্যের উপাদানগুলো ভেঙে পরিপাকে সাহায্য করে। পাকস্থলীতে খাদ্য পরিপাকের জন্য অনেক পাচক রস বের হয়। আবার লিভার (যকৃত) পরিপাকে সাহায্য করে। খাওয়ার সময় প্রচুর পানি খেলে এই তিনটি ক্ষেত্রে বাধা সৃষ্টি হয়।

তাই স্বাস্থ্যবিশেষজ্ঞরা খাওয়ার সময় পানি খেতে নিষেধ করেছেন। এ জন্যই বলা হয় ফল বা মূল খাবারের পর পানি খেতে নেই। কারণ, এতে পাচক রস ও এনজাইমগুলোর কার্যকারিতা কমে যায়, শরীর সবটুকু পুষ্টি নিতে পারে না।

স্বাস্থ্যবিশেষজ্ঞরা মনে করেন, সুস্থ ব্যক্তি খাওয়ার মধ্যে কমবেশি পানি খেলে সমস্যা নেই। তবে কারও অ্যাসিডিটি থাকলে বা খাওয়ার পর বারবার ঢেকুর উঠলে খাওয়ার মাঝে নয়, কিছু সময় পর পানি খেতে হবে।

খাদ্য পরিপাকের জন্য শরীরে যথেষ্ট পানি থাকা দরকার। তৃষ্ণার্ত অবস্থায় পেট ভরে খেলে লিভার ঠিকভাবে কাজ করতে পারে না। তাই বিশেষজ্ঞরা বলেন, খাওয়ার অন্তত আধা ঘণ্টা আগে ও আধা ঘণ্টা পরে এক গ্লাস করে পানি খেলে শরীর পানিসিক্ত থাকে, খাবার পরিপাক সহজ হয়।

অনেক বিশেষজ্ঞ আবার বলেন, হিসাব করে পানি খাওয়ার দরকার নেই। প্রয়োজন হলেই পিপাসা লাগে, তখন পানি খেতে হয়। খাওয়ার মাঝে হয়তো পিপাসা লাগে বলে আমরা সাধারণত পানি নিয়ে খেতে বসি। উপকার না থাকলে আমাদের এ অভ্যাসটি হতো না। আর তা ছাড়া, ঝাল লাগলে হেঁচকি ওঠে, তখন যে সামান্য পানি খেতে হয়, সে তো আমরা সবাই জানি।

খাওয়ার ঠিক আগ মুহূর্তে পেট ভরে পানি খেলে ওজন কমানো সহজ হয়, এ কথাও স্বাস্থ্যবিশেষজ্ঞদের অনেকে বলেন। কারণ, এতে বেশি খাওয়া হয় না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *