চবিতে ভর্তি হওয়া প্রতীমার পাশে উপজেলা চেয়ারম্যান

ফেনী সদর উপজেলার কাজিরবাগ ইউনিয়নের কাজিরবাগ গ্রামের রাখাল চন্দ্র দে’র মেয়ে প্রতিমা রানী দে এবছর চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে (চবি) ভর্তি হয়েছেন। তবে পড়াশোনার খরচ নিয়ে দুশ্চিন্তায় পড়েন তিনি।

তবে বিষয়টি নজরে আসলে প্রতীমাকে আর্থিক সহায়তা করেছেন সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক শুসেন চন্দ্র শীল।

বুধবার (২৮ সেপ্টেম্বর) দুপুরে প্রতীমার বাড়িতে গিয়ে তাকে ২০ হাজার টাকা সহায়তা দেন তিনি। এসময় আসন্ন শারদীয় দুর্গোৎসব উপলক্ষে প্রতীমা ও তার মাকে উপহারও দেন তিনি।

এসময় ফেনী সরকারি কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ প্রফেসর উৎপল কান্তি বৈদ্য, সদর উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক শেখ আবদুর শুক্কুর মানিক, বর্তমান সভাপতি আকরামুজ্জামান রাজু, সাধারণ সম্পাদক বেলাল হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

প্রতিমা রানী কাজিরবাগ হাজী দোস্ত মোহাম্মদ উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ২০১৯ সালে বিজ্ঞান বিভাগ থেকে এসএসসি পরীক্ষায় জিপিএ ৪ দশমিক ৮৯ পান। এরপর ২০২১ সালে ফেনী সরকারি জিয়া মহিলা কলেজ থেকে এইচএসসিতে জিপিএ ৫ পান। পরে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে মেধাক্রমে ৪৪৯তম হয়ে বিজ্ঞান বিভাগে ভর্তির জন্য মনোনীত হন। ভর্তির জন্য আর্থিক সংকটে পড়ার বিষয়টি জেনে ফেনী সরকারি জিয়া মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর কামরুন নাহারসহ শিক্ষকরা তার ভর্তির খরচ বাবদ ১৭ হাজার টাকা দেন।

প্রতীমা রানী দে বলেন, আমাদের কোনো সম্পদ নেই। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হওয়ার পর ভর্তির টাকা নিয়ে দুশ্চিন্তায় ছিলাম। জিয়া মহিলা কলেজের শিক্ষকরা ভর্তির জন্য সহায়তা করেছেন। এখন উপজেলা চেয়ারম্যান প্রাথমিকভাবে ২০ হাজার টাকা সহায়তা দিয়েছেন। তিনি ভবিষ্যতে আরও সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছেন। ভর্তির খরচ, বই কেনা, চট্টগ্রাম গিয়ে থাকা-খাওয়ার চিন্তা দূর হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *