ত্বকের কালচে দাগ-ছোপ দূর করবেন যেভাবে

বিভিন্ন কারণে ত্বকে পড়ে কালচে দাগ-ছোপ। হরমোনের ভারসাম্যহীনতা, হাইপারপিগমেন্টেশনসহ বেশ কয়েকটি কারণ মুখের চারপাশে কালো দাগ বা ছোপ পড়তে পারে। আসলে এপিডার্মিসের গভীর স্তর মেলানিন উৎপন্ন করে, রঙ্গক যা ত্বককে তার রং দেয়।

যদিও মেলানিন সূর্যের রশ্মি ও ক্ষতিকারক রাসায়নিক থেকে ত্বককে রক্ষা করার জন্য অপরিহার্য, তবে এর অত্যধিক পরিমাণে পিগমেন্টেশন ও কালো দাগ পড়ে ত্বকে।

অনেকের ত্বকেই কালচে দাগছোপ পড়ে, তবে বেশিরভাগই তা মেকআপ দ্বারা ঢেকে রাখেন। তবে কিছু প্রাকৃতিক উপাদান ব্যবহারের মাধ্যমে আপনি খুব সহজেই কিন্তু ত্বকের কালচে দাগ দূর করতে পারবেন।

এ বিষয়ে ভারতের দ্য এস্থেটিক ক্লিনিকের কসমেটিক ডার্মাটোলজিস্ট ও ডার্মাটো-সার্জন ডা. রিঙ্কি কাপুর জানান, মুখের চারপাশের ত্বক পাতলা হওয়ায় বেশি সংবেদনশীল। এই কালো দাগগুলো উচ্চ পরিমাণে মেলানিনের ফল।

মুখের চারপাশে উচ্চ পরিমাণে মেলানিন অনেক কারণে ঘটতে পারে যেমন- সূর্যের এক্সপোজার, গর্ভাবস্থায় হরমোনের পরিবর্তনের ফলে সৃষ্ট মেলাসমা, প্রদাহজনিত হাইপারপিগমেন্টেশন এমনকি এর জন্য আবহাওয়াও দায়ী।

ত্বকের কালচে দাগ থেকে মুক্তি পাওয়ার ক্ষেত্রে ঘরোয়া কোন কোন উপাদান সবচেয়ে কার্যকরী সে বিষয়েও জানিয়েছেন ডা. কাপুর। জেনে নিন ত্বকের কালচে দাগ-ছোপ দূর করার উপায়-

লেবু

লেবু কোলাজেন বাড়ায় ও প্রাকৃতিক ব্লিচিং বৈশিষ্ট্যসম্পন্ন। মধু বা টকদইয়ের সঙ্গে লেবুর রস মিশিয়ে ত্বকে ব্যবহার করলে উপকৃত হবেন। এর অ্যান্টি অক্সিডেন্ট বৈশিষ্ট্য অক্সিডেটিভ স্ট্রেস কমাতে সাহায্য করে।

বেসন

ত্বকের ক্লিঞ্জার হিসেবে কাজ করে বেসন। ত্বক থেকে অতিরিক্ত তেল শোষণ করে এই প্রাকৃতিক উপাদান। এটি ত্বকের কালচে দাগও হালকা করে। এজন্য বেসন, এক চিমটি হলুদ ও সামান্য কাঁচা দুধ দিয়ে মাস্ক তৈরি করুন।

ত্বকের কালচে স্থানে এটি ব্যবহার করুন ও ১০-১৫ মিনিটের জন্য শুকিয়ে ঠান্ডা পানিতে ধুয়ে নিন। নিয়মিত ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করতে ভুলবেন না।

পেঁয়াজের রস

পেঁয়াজ অ্যান্টিঅক্সিডেন্টের একটি দুর্দান্ত উৎস। ত্বক উজ্জ্বল করতে সাহায্য করে এটি। এমনকি ত্বকের কোষগুলোকে সুস্থ রাখতে ও বার্ধক্যজনিত লক্ষণগুলো কমাতেও সাহায্য করে পেঁয়াজের রস।

আলু

ভিটামিন ও খনিজে ভরপুর আলুর রস ত্বকের কালচে দাগ দূর করতে দারুন কার্যকরী। এজন্য আলুর রস ত্বকের কালচে স্থানে ব্যবহার করুন, এরপর শুকিয়ে ধুয়ে নিন ত্বক।

মটরশুঁটির গুঁড়া

কিছু শুকনো মটরশুঁটি মিহি করে গুঁড়া করে নিন। দুধের সঙ্গে মিশিয়ে মিসৃন পেস্ট তৈরি করুন। এই মাস্ক ত্বকে ব্যবহার করে ১৫-২০ মিনিট অপেক্ষা করে ধুয়ে ফেলুন। সবুজ মটরশুঁটি মেলানিন কমায়, ফলে ত্বকের পিগমেন্টেশন হালকা হতে শুরু করে।

সূত্র: হেলথশটস

Leave a Reply

Your email address will not be published.